আঙ্গুল ফোটানো ভাল না খারাপ?

Posted: এপ্রিল 29, 2012 in না জানা ঘটনা, স্বাস্থ্য টিপস, Top News

আমাদের অনেকেরই অভ্যাস আছে, কাজের ফাঁকে, প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে,আঙ্গুল ফোটানোর। আঙ্গুল ফোটালে একধরনের জোড়ালো “ক্র্যাকিং”, শব্দও হয় । সাধারণত ধারণা কারা হয়, আঙ্গুল মোচড়ানোর সময় হাড়ে হাড়ে ঘষা লেগে বুঝি শব্দ হয়। ব্যাপারটা আসলে সে রকম নয়। সেখানে হাড়ের মধ্যে ঘষা লাগেনা। আমরা যখন আঙ্গুল ফোটাই, আঙ্গুল গুলোকে আমরা সাধারনত এমন পরিমান বেন্ডিং করি, যেটা সাধারন ভাবে আঙ্গুলের পক্ষে…হওয়া সম্ভব নয়। আমাদের জয়েন্ট গুলোর চারপাশে একধরনের ফ্লুইড থাকে, যেটাকে বলা হয়, সাইনোভিয়াল ফ্লুইড। যখন আমরা এভাবে আঙ্গুল গুলোকে তাদের স্বাভাবিক অবস্থা থেকে সরিয়ে আনি, এই ফ্লুইডে একধরনের ভ্যাকুয়াম সৃষ্টি হয় এবং একটা বাবল তৈরী হয়, যেটা একদম সাথে সাথেই ভেঙ্গে যায়, এই বাবল ফাটার শব্দটাই হচ্ছে, আঙ্গুল ফোটানোর শব্দের উৎস। আঙ্গুল ফোটানো ভাল না খারাপ? সাধারনত আঙ্গুল বা পিঠের হাড় ফোটালে আমাদের হাত বা পিঠ সাময়িক কিছু আরাম পায়, ঐ অঞ্চলের জড়তাটা কাটিয়ে উঠানো যায়,,এই অর্থে আঙ্গুল ফোটানোটা ভাল। আঙ্গুল ফোটানোর সাথে বুড়ো বয়সে আর্থারাইটিস হবারও কোন সম্পর্ক নেই। তবে যার…া অনেক বেশি আঙ্গুল ফোটান, আস্তে আস্তে তাদের জয়েন্ট কিছুটা দুর্বল হয়ে পড়ে। সেজন্য কাজের ফাঁকে হাত বা পিঠ-কে আরাম দেবার জন্য মাঝে মধ্যে আঙ্গুল ফোটানো যেতে পারে,কিন্তু সেটা যেন বদভ্যাসে পরিণত না হয়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s