Android এ নতুন দের যে জিনিসগুলো অবশ্যই জেনে রাখা উচিত।

Posted: সেপ্টেম্বর 23, 2012 in টিপস & ট্রিক্স, টেকবিশ্ব, তথ্য প্রযুক্তি, না জানা ঘটনা, মোবাইল টিপস

নতুন ফোন হাতে পাওয়ার আন্দই আলাদা। কিন্তু নতুন ফোনে রয়েছে অনেক বৈচিত্রতা, কোন ব্রান্ডটি আপনার জন্য সেরা এবং একটি নুতন ফোন হাতে পাওয়ার পর কিভাবে সেটিকে সঠিক ভাবে ব্যবহার করবেন তা নিয়ে নানান প্রশ্ন। আজ আমি যারা Android পৃথিবীতে নতুন এসেছেন তাদের জন্য 20টি টিপস শেয়ার করবো যেগুলো একজন Android ইউজারের অবশ্যই জানা উচিত।

1. Android কি?
– Android হলো একটি operating system, যেমন কম্পিউটারের জন্য Windows এবং iPhones and iPads এর জন্য iOS.

2. Android এর নির্মাতা কে?
– Google হলো Android এর নির্মাতা,  Samsung, HTC এবং Motorola -র মতো বড় বড় মোবাইল ফোন নির্মাতা কোম্পানি তাদের ফোনে অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে  Android ব্যবহার করছে। পাশাপাশি বিভিন্ন কোম্পানি Android বেইজড tablet বের করছে যা খুব জনপ্রিয় হয়েছে। এপর্যন্ত কিছু Android camera ও রিলিজ হয়েছে।

3. কেন Android আজ সবার মুখে মুখে?
– সবসময়ই Android এর নতুন version গুলোতে চমৎকার আর অভাভনীয় সব ফিচার নিয়ে আসে। বিগত মাত্র কয়েক বছরে গুগল Android এর Eclair, Froyo, Gingerbread, Honeycomb, Ice Cream Sandwich ইত্যাদি ভার্সন রিলিজ করেছে। এর এক একটি ভার্সন ছিল প্রযুক্তির অ্গ্রগতির নতুন একটি ধাপ। অতি সম্প্রতি গুগল Android এর নতুন সংস্করণ Jelly Bean রিলিজ করেছে।

4. Android কি কোন সফট্ওয়্যার আছে?
– হ্যাঁ Google Play নামে Android এর বিশাল সফট্ওয়্যার মার্কেট আছে যেখানে থেকে আপনি বই, গান, মুভি, সফট্ওয়্যার ডাউনলোড করতে পারবেন। সেখানে বিশ্বখ্যাত Amazon এর ও রয়েছে নিজস্ব app.

5. আমি কি Android এ Twitter and Facebook ব্যবহার করতে পারবো?
– অবশ্যই পারবেন। আজকাল যেসকল ফোন বের হচ্ছে তার সবই ইন্টারনেট ব্যবহার উপযোগী। Android অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে এমন যেকোন হ্যান্ডসেটেই আপনি Facebook and Twitter ব্যবহার করতে পারবেন।

6. আমি কি করে আমার Android এ সফট্ওয়্যার ডাউনলোড করতে পারব?
– দুটি উপায়ে আপনি আপনার Android এ সফট্ওয়্যার ডাউনলোড করতে পারবেন। প্রথমত Google Play এর মাধ্যমে, আপনি যখন প্রথমবার Android টি ওপেন করবেন তখনই Google Play স্ক্রিনে আসবে। সেখান থেকে পছন্দমতো app ডাউনলোড করতে পারবেন। এতে আপনার কোন কম্পিউটার প্রয়োজন হবে না। দ্বিতীয়ত কম্পিউটার ব্যবহার করে Google Play website এর মাধ্যমে, এক্ষেত্রে আপনার গুগল একাউন্টের মাধ্যমে log in করতে হবে।

 

7. আমার কোন ডাটা ক্যাবল নেই তাহলে কিভাবে কম্পিউটারের সাথে connect করব?
– Android Device গুলো cellular data অথবা Wi-Fi এর মাধ্যমে সরাসরি Google Play সার্ভার এর সাথে যুক্ত হতে পারে তাই ক্যাবল নিয়ে চিন্তা করার কিছুই নেই।

8. কিভাবে আমি আমার Android Device এ ছবি ও ভিডিও স্টোর করতে পারবো?
– বেশ কয়েকটি সহজ ধাপে আপনি আপনার Android Device এ ছবি ও ভিডিও স্টোর করতে পারবেন। প্রথমত Dropbox account এবং Dropbox app ব্যবহার করে। সবকিছু Dropbox এ আপনার কম্পিউটার থেকে আপলোড করুন আর Android Device এ Dropbox এ log in করে এর সব ফাইল এক্সেস করুন। তার চেয়ে সহজ হলো ক্যাবল এর মাধ্যমে আপনার Android Device টি কম্পিউটারের সাথে কানেক্ট করুন এবং USB ‍Stoarage device হিসেবে অপশন সিলেক্ট করুন। তারপর drag and drop করে আপনার Android Device এ ছবি ও ভিডিও স্টোর করতে পারবেন।

9. iTunes এ আমার অনেক গান আছে আমি কি Android ব্যবহার করে সেগুলো শুনতে পারবো?
– হ্যাঁ doubleTwist  নামে একটি software আছে যা হুবহু iTunes এর মতো কাজ করে। সফট্ওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন। তারপর আপনার iTunes গানগুলো আপনার Android এ ট্রান্সফার করে নিন।

10. আমি কি আমার Android Angry Birds  গেমটি খেলতে পারবো।
– হ্যাঁ এটি Android এর টপ ফ্রি গেম গুলোর মধ্যে একটি । Google Play থেকে Angry Birds Download করতে পারবেন।

11. Samsung এবং HTC Android phone মধ্যে পার্থক্য কি?
Google Android software টি নির্মাণ করেছে, Samsung আর HTC hardware নির্মাতা কোম্পানীগুলো সেই software টি তাদের ডিভাইসে install দিচ্ছে মাত্র। Hardware নির্মাতা কোম্পানীগুলো competition টিকে থাকার জন্য তাদের Android ডিভাইসগুলোতে পৃথক পৃথক skin, ফিচার ও ডিজাইনের বৈচিত্রতা আনছে।

12. আমি যদি গুগল Android এর Pure experience পেতে চাই তাহলে আমাকে কি করতে হবে?
– আপনি যদি গুগল Android এর pure experience পেতে চান তবে আপনাকে “Nexus”  ডিভাইসটি কিনতে হবে, যেমন Nexus 7 tablet অথবা Galaxy Nexus phone. এই ডিভাইসগুলোতে কোন থার্ড-পার্টির সফটওয়্যার বা হার্ডওয়্যার ব্যবহার করা হয় না।

13. Home screens এবং App drawer এর মধ্যে পার্থক্য কি?
– আপনার Android এ installed সকল app গুলোকে app drawer এ খুঁজে পাবেন। Apple এর ডিভাইস গুলোতে সফট্ওয়্যারগুলো home screen এ থাকে কিন্তু Android device গুলোতে রয়েছে প্রায় 7টি home screen যেখানে আপনি আপনার পছন্দের app গুলোকে রাখতে পারবেন quick access এর জন্য। আর বাকিগুলো app drawer এ স্টোর করে রাখতে পারবেন।

14. Widgets কি?
– Widgets হলো Android এর অন্যতম একটি জনপ্রিয় feature. এগুলো home screen এ বিভিন্ন information দেখার জন্য ব্যবহৃত হয়ে থাকে। যেমন ফেসবুক, টুইটার এর স্ট্যাটাস পরিবর্তত ও বর্তমান অবস্থা দেখার জন্য । এই Widget গুলো ব্যাটারি সাশ্রয়ী কারন এগুলো ব্যবহার করার জন্য আপনাকে প্রতিবার সম্পূর্ন app টি খুলতে হয় না।

15. Android ব্যবহারের জন্য আমার কি কোন Google account এর প্রয়োজন আছে?
– হ্যাঁ, পূর্বেই বলেছি আপনাকে গুগল একাউন্টের মাধ্যমে Google Play তে লগইন করে আপনার পছন্দের app ডাউনলোড করতে হবে। আপনার পূর্বের যেকোন গুগল একাউন্ট যেমন জিমেইল একাউন্ট দিয়েও Android ব্যবহার করতে পারবেন।

16. Contacts ট্রান্সফারের সহজতম উপায় কি?
– আপনি সহজেই গুগলে আপনার contacts গুলো সেভ করতে পারবেন। তারপর আপনি যখন Android থেকে আপনার গুগল একাউন্টে লগইন করবে তখন সকল contacts automatically syn হয়ে যাবে। তাছাড়া আপনি SIM card এর মাধ্যমেও contacts কপি করতে পারেন।

মন্তব্য
  1. সবার স্মার্ট ফোন ব্যবহার করা উচিত।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s