Archive for the ‘অ্যাপ’ Category


প্রতিদিনের কাজের তালিকাটা অনেকের অনেক লম্বা। এত সব কাজের মাঝে অনেক সময় প্রয়োজনীয় কাজটির কথা মনে থাকে না। আর যারা ভুলোমনা টাইপের মানুষ তাদের বিষয়ে তো কথাই নেই। যথাসময়ে কাজের কথা ভুলে যান সহজেই। ফলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ সঠিক সময়ে করা হয় না। তবে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের সহায়তায় রয়েছে কিছু অ্যাপস।

স্মার্টফোনে দৈনন্দিন পরিকল্পনাগুলোকে সাজিয়ে রাখলে তা মনে করিয়ে দেবে কখন কোন কাজটি করতে হবে? কেমন হবে তখন? কাজের তালিকা তৈরির জন্য অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএসের রয়েছে অনেক অ্যাপস। এগুলোর মধ্যে থেকে সবচেয়ে জনপ্রিয় ৫টি অ্যাপস নিয়ে এ প্রতিবেদন।

 

এ্যানি ডু (any.do)

 

লাখো ব্যবহারকারী প্রতিদিন তাদের কর্মপরিকল্পনার জন্য এ্যানি ডু অ্যাপ ব্যবহার করেন। এটির ডিজাইন খুব সুন্দর এবং ব্যবহার করা খুব সহজ।

 

Any.DO-iPhone_techshohor

 

এ্যানি ডু অ্যাপে রয়েছে ক্লাউড সুবিধা। এতে তালিকায় থাকা কাজগুলো মেইল আইডি এবং ফেইসবুকের সাহায্যে সিনক্রোনাইজ করা যাবে। ফলে অন্য কোনো ডিভাইস থেকে সিনক্রোনাইজ করলে পাওয়া যাবে কাজের ফর্দ। কর্মপরিকল্পনার সময় ঠিক করে রাখলে নির্দিষ্ট সময়ে তা এ্যালার্ম দিয়ে জানিয়ে দেবে।

 

এটি অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের জন্য ফ্রি ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যাবে।
এখান থেকে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন।

 

রিমেমবার  দ্যা মিল্ক (Remember the Milk) (বিস্তারিত…)

Advertisements

ছবি তোলার পর সেটিকে আরও সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলতে হাল আমলে এফেক্ট যোগ করা হচ্ছে হামেশ্ই। ছবিতে নিত্য নতুন ইফেক্ট যুক্ত করার প্রবণতা বাড়ছে। তবে এ জন্য কম্পিউটার বা সফটওয়্যারে এক্সপার্ট হওয়ার প্রয়োজন নেই। একটি অ্যাপ ব্যবহার করেই এ কাজটি করা যাবে খুব সহজেই।

ছবিতে ইফেক্ট যোগ করতে অ্যান্ড্রয়েডের রয়েছে নানা অ্যাপস। এত সব অ্যাপসের মধ্যে ভাল একটি অ্যাপস খুঁজে পাওয়া একটু কঠিন বৈকি। অনেকগুলোর মধ্যে থেকে বাছাই করে ব্যবহার করা যেতে পারে জেনরেট্রো (XnRetro)। ছবিতে ইফেক্ট যুক্ত করার জন্য এটি চমৎকার একটি অ্যাপ। এতে রয়েছে দারুণ এবং সুন্দর অনেকগুলো ইফেক্ট। যে ইফেক্টগুলো ব্যবহার করলে ছবি আগের থেকে আকর্ষণীয় হবে।

app-xnretro-512

অ্যাপটির ফিচারগুলো হলো- (বিস্তারিত…)


বিশ্ববিদ্যালয়ের রঙ্গীন দিনগুলোর গল্প, মজাদার কাহিনী, ভাল ও খারাপ লাগা অনুভূতির স্মৃতিচারণ মূলক লেখার একটি অ্যাপ উম্মুক্ত করা হয়েছে।

ইউনিভার্সিটি লাইফ বাই সরব.কম নামের অ্যাপটিতে উঠে এসেছে ১৮ জন ব্লগারের বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের দিনগুলো।

shrobapps_techshohor

সম্প্রতি অ্যাপটি প্রকাশের আগে বিভিন্ন  ব্লগারদের কাছ থেকে লেখা সংগ্রহ করা হয়। এরপর অনেক লেখা থেকে বাছাই করা ১৮টি নিয়ে একটি ই-বুক প্রকাশ করা হয়েছিল।

ই-বুক প্রকাশের পর এটি অ্যাপ আকারে গুগল স্টোরে প্রকাশ করা হয়।

অ্যাপটির মাধ্যমে নির্বাচিত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের দারুণ সব গল্পগুলো সহজে পড়া যাবে। অ্যাপটির ওপরে একটি মেন্যু রয়েছে যেখান থেকে প্রথম পাতা, সম্পাদকীয়, বইটির সর্ম্পকে এবং সূচী দেখা যাবে। কিভাবে অ্যাপটি ব্যবহার করতে হবে সেজন্য রয়েছে ‘ইউজার গাইড’।

অ্যাপটি সর্ম্পকে সরব.কমের সমন্বয়কারী নুরউদ্দিন আহমেদ বাপ্পি বলেন, ‘সরব উদ্ভাবনে বিশ্বাস করে। গত ৬/৭ বছরে বাংলা ব্লগাররা নতুন তাদের বক্তব্য, আইডিয়া, গল্প  মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন। সরব সেদিকে একটু বেশি সক্রিয়। এক মহৎ  রিকশাচালকের হাসপাতাল তৈরির ওপর ব্লগ থেকে শুরু করে রবিঠাকুর এবং বাংলাদেশের মিডিয়ার ওপর ইনফোগ্রাফিক প্রকাশ করেছে সরব।

বাপ্পি জানান, বাংলা ভাষায় প্রথম গণিতের ওপর ই-বুক এর পাশাপাশি এবার সরব বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবনের গল্প নিয়ে ই-বুক তৈরি করেছে। সরব তারুণ্যের প্ল্যাটফর্ম। আর তরুণদের কাছে পৌঁছানোর সহজ উপায় মোবাইল ফোন। তাই মোবাইল অ্যাপ আকারে ই-বুকটা প্রকাশ করা হয়েছে।

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমচালিত স্মার্টফোনের ব্যবহারকারীরা ১.৬৩ মেগাবাইটের অ্যাপটি এখান থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন।


যুগের সাথে তাল মিলিয়ে বই পড়ার মাধ্যমও বদলে যাচ্ছে। কাগজের মলাটে বাঁধাই করা বইয়ের পাশাপাশি এখন ই-বুক বা ডিজিটাল বুকও জনপ্রিয় হয়ে ঊঠছে। এরই প্রেক্ষিতে দেশের অন্যতম মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মোবিওঅ্যাপ তৈরি করেছে ‘বই পোকা’ নামে একটি ডিজিটাল বুক রিডিং অ্যাপ্লিকেশন।

পাঠকরা আইফোন এবং অ্যান্ড্রয়েডের সকল স্মার্ট ডিভাইসে বিনামূল্যের এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে বই পড়তে পারবেন। এতে কালজয়ী সব ক্লাসিক বই দেওয়া আছে। পাঠকরা সেগুলো বিনামুল্যে পড়তে পারবেন।

Boipoka-TechShohor

এছাড়াও একজন পাঠক জনপ্রিয় সব লেখকের বই অ্যাপ্লিকেশনটির ‘ইন-অ্যাপ পারচেজ’ ফিচারটির মাধ্যমে খুব সহজেই কিনে পড়তে পারবেন। পাঠকদের বই পড়ার অভিজ্ঞতাকে নতুন মাত্রা দিতে অ্যাপ্লিকেশনটিতে রয়েছে বুকমার্ক, হাইলাইটার, আন্ডারলাইন, অ্যানোটেশন, পেইজ জাম্প, বুক রেটিংয়ের মতো কার্যকর সব ফিচার।

অ্যাপটি ব্যবহারকারীরা তাদের নিজস্ব পিডিএফ বইয়ের সংগ্রহও খুলতে পারবেন। তারা বইয়ের কোন একটি পছন্দের অংশ সোশ্যাল শেয়ার ফিচারের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগের সাইটগুলোতে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন।

প্রকাশক এবং লেখকদের মেধাসত্ত্ব ও রয়্যালটি রক্ষার্থে এবং পাইরেসি রোধকল্পে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মোবিওঅ্যাপ নিজস্ব পিডিএফ রিডার তৈরি করে অ্যাপলিকেশনটিতে ডিজিটাল রাইট ম্যানেজমেন্ট (ডিআরএম), দুই স্তরের নিরাপত্তা এবং এনক্রিপশনের ব্যবস্থা করেছে।

২১শে বইমেলা উপলক্ষে বই পোকা অ্যাপ থেকে ডিজিটাল বই ৬০ থেকে ৬৫ শতাংশ ছাড়ে কিনতে পারবেন বাংলা একাডেমী প্রাঙ্গনে বইমেলার ৫১৩ নাম্বার স্টল থেকে।

‘বই পোকা’ অ্যাপটি এই লিংক থেকে ডাউনলোড করা যাবে।


দুর্ঘটনার কোনো সময় অসময় নেই। তাই সব সময় প্রস্তুত থাকা ভালো। এ ক্ষেত্রে হাতের স্মার্টফোনটিও কাজে আসতে পারে। যদি প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য ফার্স্ট এইড অ্যাপটি নামানো থাকে।

দুর্ঘটনার পরপর আহত ব্যক্তিকে নিকটের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগে প্রয়োজন প্রাথমিক চিকিৎসার। ফার্স্ট এইড অ্যাপটি সে সময় জানিয়ে দেবে রোগীর জন্য কি ধরনের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রয়োজন।

চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করার আগে অ্যাপটির ব্যবহার বেশ উপকারে আসবে। দুর্ঘটনা ছাড়াও অন্যান্য রোগের সমন্ধে প্রাথমিকভাবে জানতেও সাহায্য করবে এটি। দারুণ কাজের এ অ্যাপটির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে এ প্রতিবেদন।

First-aid-android-logo_techshohor

বিশ্বব্যাপী অ্যাপটি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এখন পর্যন্ত দশ লাখ বার ডাউনলোড করা হয়েছে। গুগলের প্লেস্টোরে অ্যাপটির রেটিং ৪.৫। সাইজ ৩.৪ মেগাবাইট।

এক নজরে অ্যাপটির ফিচারগুলো
১. এতে রয়েছে স্বাস্থ্য বিষয়ক নানা ট্রিপস।
২. জরুরী নম্বরে কল করার ব্যবস্থা রয়েছে।
৩. প্রাথমিক রোগ সনাক্তেও সাহায্য করবে এটি। রোগীকে অসুস্থতার ধরণ সর্ম্পকে প্রশ্ন করে এর উওর দেওয়ার মাধ্যমে তা সনাক্ত করা যায়।
৪. বিভিন্ন ধরনের রোগের প্রাথমিক চিকিৎসা সর্ম্পকে বিস্তারিত ছবিসহ  বর্ণনা দেওয়া আছে।

firstaid_techshohor

৫. অ্যাপটিতে রয়েছে বিভিন্ন ওষুধের নাম।
৬. বিভিন্ন রোগের কারণ সর্ম্পকে তুলে ধরা হয়েছে এবং প্রতিকারগুলো সুন্দরভাবে তুলে ধরা হয়েছে।

এখান থেকে অ্যাপটি বিনামূল্যে ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যাবে।


স্বাস্থ্য সেবায় প্রযুক্তির ব্যবহার বহুল প্রচলিত। ইদানিং স্মার্টফোনের মাধ্যমেও মিলছে স্বাস্থ্যের বিভিন্ন সেবা। নতুন নতুন ডিভাইস ও অ্যাপ ভূমিকা রাখছে এ ক্ষেত্রে। তেমনি একটি ডিভাইস ও অ্যাপ হলো এলাইভইসিজি।

স্মার্টফোনে এটি ব্যবহার করা হলে এখন আর রোগীকে রিপোর্ট দেখানোর জন্য চিকিৎসকের চেম্বারে শশরীরে যেতে হবে না। স্মার্টফোনটিই এখন হৃদকম্পন পরিমাপ করে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে পাঠিয়ে দিবে চিকিৎসকের কাছে।

alivecor

প্রযুক্তিবিদ ও চিকিৎসকরা এ প্রযুক্তিকে স্বাস্থ্য সেবায় যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসাবে দেখছেন। হাতে পরিধানযোগ্য এ ডিভাইসের মাধ্যমে স্মার্টফোনে থাকা এলাইভইসিজি নামের অ্যাপটি প্রতিনিয়ত হৃদকম্পন রেকর্ড করবে। http://adf.ly/eEH1d

এরপর অ্যাপটি রেকর্ড করা ডাটাবেস থেকে তথ্য বিশ্লেষণ করে কোনো সমস্যা থাকলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ই-মেইলের মাধ্যমে তা চিকিৎসকের কাছে পাঠিয়ে দেবে। ফলে চিকিৎসক রেকর্ড দেখে চিকিৎসার নির্দেশনা দিতে পারবেন।

এর ফলে রোগীকে কষ্ট করে হাসপাতালে চিকিৎসকের চেম্বারে যেতে হবে না। ঘরে বসেই চিকিৎসা সেবা পাওয়া যাবে। রোগী ও চিকিৎসক উভয়ের সময় সাশ্রয় হবে।

৫৭  বছর বয়সী উত্তর ক্যারোলিনার বাসিন্দা ই বি ফক্স গত বছরের অক্টোবর থেকে ডিভাইসটি ব্যবহার করছেন। তিনি জানান, এখন তাকে কষ্ট করে চিকিৎসকের কাছে যেতে হয় না। একটি ই-মেইলের মাধ্যমেই চিকিৎসার দিক নির্দেশনা পাচ্ছেন তিনি।

স্মার্টফোনের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা খাতেও নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হয়েছে নতুন এ প্রযুক্তির মাধ্যমে।


স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েডের জনপ্রিয়তা শীর্ষে। অ্যাপস সহজলভ্যতার জন্য অ্যান্ড্রয়েডের ব্যবহার বেশি। এ অপারেটিং সিস্টেমের স্মার্টফোন কাস্টমাইজ করার জন্য নানা রকম লঞ্চার অ্যাপ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এসব লঞ্চার দ্বারা হোম স্কিন, উইজেট ইত্যাদি বিভিন্ন রুপে দেখা যায়।

অ্যান্ড্রয়েডের অনেক লঞ্চারের মধ্যে থেকে ভালোটি খুঁজে পাওয়া খুবই কষ্টসাধ্য। এ প্রতিবেদনে চারটি লঞ্চারের সাথে পরিচিয় করিয়ে দেওয়া হলো যা আপনার কাজ সহজ করে দেবে।

apex

এপেক্স লঞ্চার (Apex Launcher)
অ্যান্ড্রয়েডের এ অ্যাপও বেশ জনপ্রিয়। গুগল প্লে স্টোর থেকে এক (বিস্তারিত…)


অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য স্মার্টফোনটি সঠিকভাবে চালাতে বেশ কিছু সাহায্যকারী অ্যাপ আছে। কিছু অ্যাপ আছে যেগুলো মেমোরি ক্লিনার হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এগুলো ব্যবহার করা হলে স্মার্টফোনের গতি কিছু হলেও বৃদ্ধি পায়। অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ বন্ধ রাখে ফলে ব্যাটারি চার্জ ক্ষয় কম হয়। সে রকম একটি চমৎকার অ্যাপ অ্যান্ড্রয়েড অ্যাসিস্ট্যান্ট।

অ্যাপটি ফাইল ম্যানেজার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। একই সাথে প্রয়োজনীয় ফাইল ব্যাকআপ রাখাসহ অনেক কাজ করা যাবে এটির সাহায্যে। এ যেন একেক ভিতর সব।

android_assistent_escreveassim.com_.br_

এক নজরে অ্যাপটির ফিচারগুলো (বিস্তারিত…)


প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে বাড়ছে স্মার্টফোন ব্যবহার। মুহূতেই অনেক কাজ করে ফেলা যায় নতুন প্রযুক্তির এ ফোনের সাহায্যে। বিশেষ করে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস ব্যবহার অনেক জটিল ও দূরহ বিষয়কেও সজহ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় তৈরি হয়েছে শিক্ষামূলক বিভিন্ন অ্যাপস। তেমনি একটি অ্যাপ নামাজ শিক্ষা।

মুসলিম ধর্মের এ অত্যাবশ্যকীয় ইবাদত প্রতিপালনের বিষয় স্মার্টফোনের মাধ্যমে শেখাতে বাংলা অ্যাপটি তৈরি করা হয়েছে। নামাজ পড়ার নিয়মকানুন, নামাজের সময়, বিভিন্ন সূরা এবং দোয়া সম্পর্কে এতে তুলে ধরা হয়েছে।

imagesএক নজরে অ্যাপটির ফিচারগুলো
১. পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের (বিস্তারিত…)


এবার পুরো রাজধানী ঢাকার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ডিএমপি’ অ্যাপ চালু করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে অ্যাপটির উদ্বোধন করেন ডিএমপি কমিশনার বেনজীর আহমেদ।

অ্যাপটির মাধ্যমে ঢাকার সকল থানার ওসি এবং ডিউটি অফিসারের নম্বরসহ পাওয়া যাবে প্রতিটি থানার ঠিকানা এবং ম্যাপ। এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করে ঢাকার যে কোন স্থান থেকে আপনি আপনার সবচেয়ে কাছের থানাটি সহজেই খুঁজে বের করতে পারবেন; সেই সাথে গুগল ম্যাপে আপনাকে সেই থানায় যাওয়ার পথও দেখিয়ে দেবে।

মঙ্গলবার দুপুরে উদ্বোধন হলেও সোমবার রাতে এটি চালু হয়। প্রথম রাতেই ‘অ্যাপটি ১৪ হাজার ডিভাইস থেকে ডাউনলোড হয়েছে বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়। ফেইসবুক পেইজের মাধ্যমেও ভালো সাড়া মিলছে বলে জানান ডিএমপি কর্মকর্তারা।

Image

মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পুলিশের বিভিন্ন সেবাকে জনগনের আরও কাছে পৌছে দিতে ডিএমপি আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করল ‘ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ-ডিএমপি’ নামের এ স্মার্টফোন অ্যাপ্লিকেশন।

উত্তরায় সর্বপ্রথম অ্যন্ড্রয়েডচালিত অ্যাপ্লিকেশন (অ্যাপ) চালু করে ডিএমপি।

বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েড প্লাটফর্মের সকল মোবাইল ফোনে (স্যামসাং, ওয়ালটন, সিম্ফনি, এইচটিসিসহ অন্যান্য) এটি ব্যবহার করা যাবে।

নতুন মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটি চালু (বিস্তারিত…)