Archive for the ‘হ্যাকিং টিপস’ Category


558395_142071752602463_1384647620_n-300x225সাবধান হন এখনি। আপনিও হতে পারেন সিম ক্লোনের শিকার। হাঁ ভয়ানক এই তথ্যটি জানতে পারি একুশে টিভির এক বন্ধুর মাধ্যমে। পরে বিষয়টি সম্পর্কে আরও স্পষ্ট ধারনা পেতে একুশে টি ভির নিউজ দেখে শিওর হলাম মাত্র।

১- সিম ক্লোন কি?
একটি সিম যেটি আপনি ব্যবহার করছেন সেই সিম টি যদি অন্য কেউ ব্যবহার করে কিংবা এক নাম্বার যদি দেখেন এক সাথে দুইজন ব্যবহার করে কিংবা হঠাৎ করে যদি দেখেন আপনার সেল ফোনের কানেকশন নাম্বার থেকে ব্যালান্স কোন কারন ছাড়া কমে যাচ্ছে তবে আপনি সিম ক্লোনের শিকার।

২- কিভাবে শিকার হবেন সিম ক্লোনের?
আপনি যদি অপরিচিত কোন নাম্বার থেকে মিসড কল পান এবং সেটাতে যদি কল ব্যাক করেন তবে আপনি সিম ক্লোনিং এর শিকারে পরিনত হতে পারেন। দুষ্কৃতকারীরা বিশেষ একটি সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনার নাম্বার টি ক্লোনিং করে। অর্থাৎ আপনি যখন মিসড কল নাম্বারে কল ব্যাক করবেন তখন একটি সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনার নাম্বার টি ক্লোন হতে পারে। সিম ক্লোনিং হলে আপনার সিমে রাখা ডাটা ক্লোন নাম্বারে চলে যাবে। এবং আপনার প্রাইভেসি ক্ষুণ্ণ হবে।৩- যে সমস্যায় আপনি পড়তে পারেন সিম ক্লোনিং হয়ে গেলে?
সাধারনত জঙ্গি কিংবা দুষ্কৃতিকারীরা আপনার নাম্বার টি ব্যবহার করে আপনার জীবন বিপন্ন করতে পারে। অর্থাৎ ওই নাম্বার দিয়ে কেউ কাউকে মৃত্যুর হুমকি, চাঁদাবাজি কিংবা জঙ্গি কানেকশন করলে আপাত দায়ভার আপনার উপর বর্তাবে। কাজেই আপনি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধৃত হবেন। পরবর্তীতে আরও নানাবিধ সমস্যায় পড়তে পারেন।লক্ষ্য করুন———–
* ভারতে সম্প্রতি এক লাখ সিম ও রিম কার্ড ক্লোনিং হয়েছে। সেখানকার গোয়েন্দা বাহিনী সতর্ক অবস্থায় রয়েছে। ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে ওই ক্লোনিং সিম বা রিমের মাধ্যমে অনেক অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে।
* বাংলাদেশে এখনও সিম ক্লোনিং হয়েছে বলে ৬ টি মোবাইল অপারেটরের হাতে এমন কোন তথ্য নেই। তবে বাংলাদেশের গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে যে কোন সময় এমন অনাকাংখিত ঘটনা ঘটতে পারে।সতর্ক হবেন যেভাবে-
* অপরিচিত নাম্বার থেকে মিসড কল এলে আপনি কল ব্যাক করার পূর্বে ভালো করে চিহ্নিত করবার চেষ্টা করুন যে এটি কার নাম্বার। অথবা কল ব্যাক করা বন্ধ করুন।
* মনে রাখবেন সিম ক্লোনিং হতে হলে মিসড কল আসবে। ডাইরেক্ট রিং হলে সেটি রিসিভ করলে আপনি সিম ক্লোনিং এর শিকার হবেন না। মিসড কল এলেই সতর্ক হন।
* যদি দেখেন আপনার সেল ফোনের ব্যালান্স অকারণে কমে যাচ্ছে সাথে সাথে কল সেন্টারে ফোন করে জানান।
* আপনার সেল ফোন টি এখনি বন্ধ করে অন্য একটি নাম্বার থেকে আপনার নাম্বারে ফোন দিন। দেখুন রিং হয় কিনা। রিং হলে আপনি সিম ক্লোনিং এর শিকার।

সবাই সতর্ক থাকুন ,ভালো থাকুন ।


আমরা অনেক সিসি ক্যামেরা দেখেছি। বিশেষ করে ইংরেজি সিনেমায় প্রচুর দেখেছি। ডাই হার্ড-৪ বা দ্যা টুর্নামেন্ট মুভি যারা দেখেছেন তারা নিশ্চয় দেখেছেন সিসি ক্যামেরা হ্যাক করে কতটা ভয়ংকর কর্মকাণ্ড করা যায়। বিশ্বের অনেক জায়গায় সিসি ক্যামেরার অবাধ ব্যবহার হচ্ছে। আমাদের দেশেও হয় কিন্তু খুব বেশি না।

যাই হোক কেমন হয় যদি মুভির ঐ হ্যাকারদের মতো আপনিও সিসি ক্যামেরা হ্যাক করে নিয়ন্ত্রণ করেন? খুব মজা হওয়ার কথা তাই না? ক্যামেরা আপনি যেদিকে ইচ্ছা সেদিকে মুভ করাতে পারছেন। ইচ্ছা করলে জুম করতে পারছেন। আরো কত কি!

কি কি লাগবে হ্যাক করতে? তেমন কিছুই না। শুধু একটু ভাল নেট স্পিড হলেই হবে। কারণ সিসি ক্যামেরা স্কিন আপনার ব্রাউজারে লোড হতে হবে। তাহলে চলুন শুরু করি সিসি ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ।

সিসি ক্যামেরা যেভাবে নিয়ন্ত্রণ করবেন:

প্রথমে যান গুগলে। http://www.google.com

তারপর নিচে দেয়া কোডগুলো থেকে যে কোন একটা কোড গুগলে সার্চ করুন।

* inurl:”CgiStart?page=”
* inurl:/view.shtml
* intitle:”Live View / – AXIS
* inurl:view/view.shtml
* inurl:ViewerFrame?Mode=
* inurl:ViewerFrame?Mode=Refresh
* inurl:axis-cgi/jpg
* inurl:axis-cgi/mjpg (motion-JPEG) (disconnected)
* inurl:view/indexFrame.shtml
* inurl:view/index.shtml
* inurl:view/view.shtml
* liveapplet
* intitle:”live view” intitle:axis
* intitle:liveapplet
* allintitle:”Network Camera NetworkCamera” (disconnected)
* intitle:axis intitle:”video server”
* intitle:liveapplet inurl:LvAppl
* intitle:”EvoCam” inurl:”webcam.html”
* intitle:”Live NetSnap Cam-Server feed”
* intitle:”Live View / – AXIS”
* intitle:”Live View / – AXIS 206M”
* intitle:”Live View / – AXIS 206W”
* intitle:”Live View / – AXIS 210?
* inurl:indexFrame.shtml Axis
* inurl:”MultiCameraFrame?Mode=Motion” (disconnected)
* intitle:start inurl:cgistart
* intitle:”WJ-NT104 Main Page”
* intitle:snc-z20 inurl:home/
* intitle:snc-cs3 inurl:home/
* intitle:snc-rz30 inurl:home/
* intitle:”sony network camera snc-p1?
* intitle:”sony network camera snc-m1?
* site:.viewnetcam.com -www.viewnetcam.com
* intitle:”Toshiba Network Camera” user login
* intitle:”netcam live image” (disconnected)
* intitle:”i-Catcher Console – Web Monitor”

এখন এই জাতীয় ওয়েব সাইট খুঁজে বের করুন। http://173.190.94.9/CgiStart?page=Single&Language=0

এখন দেখবেন নিয়ন্ত্রণ করার প্যানেলসহ ক্যামেরা এসে গেছে। (কিছু কিছু সাইট নাও কাজ করতে পারে)

আর হ্যাঁ কোন রকম অনৈতিক কাজের জন্য আমি দায়ী থাকবো না। 😉

ভাল থাকবেন সবাই।
ধন্যবাদ সবাইকে।


আপনার ফেসবুকের ই-মেইল ঠিকানা, পাসওয়ার্ড যদি সবাই জেনে যায়, তবু কেউ আপনার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে পারবে না। আর এর জন্য প্রথমে ফেসবুকে ঢুকে (লগ-ইন) ডান পাশের Account থেকে Account Settings-এ যেতে হবে। এখন নিচে Account Settings- এর ডান পাশের Security-তে ক্লিক করুন। এখন Login Approvalsএর নিচে Require সব to enter a security code sent to my phone বক্সেটিক চিহ্ন দিন। টিক চিহ্ন দেওয়ার সময় নতুন একটি বার্তা এলে Set Up Now –এ ক্লিক করুন।এখন Phone number: বক্সে আপনার মোবাইল নম্বর লিখে Continue-এ ক্লিক করুন।

আপনার মোবাইল ফোনে একটি সাংকেতিক (কোড) নম্বর আসবে। নম্বরটি কোড বক্সে লিখে Submit Code বাটনে ক্লিক করে Close-এ ক্লিক করুন।(Login Notifications- এর নিচে Send me an email এবং Send me a text message বক্সেও টিক চিহ্ন দিয়ে রাখতে পারেন।) এখন Save-এ ক্লিক করে বেরিয়ে আসুন। এখন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে বেরিয়ে (লগ-আউট) আবার ফেসবুকে লগ-ইন করুন। দেখবেন Name New Computer নামে একটি পেজ এসেছে। সেখানে Computer name বক্সে কোনো নাম লিখে Add to your list of recognized devices বক্সে টিক চিহ্ন দিয়ে Continue-তে ক্লিক করুন। এখন থেকে প্রতিবার আপনার কম্পিউটার ছাড়া অন্য কারও কম্পিউটার থেকে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ঢুকতে চাইলে আপনার মোবাইলে একটি কোড নম্বর আসবে এবং সেই কোড নম্বরটি কোড বক্সে লিখে Continue-এ ক্লিক করলেই আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করা যাবে। কাজেই আপনার ফেসবুকের পাসওয়ার্ড সবাই জানলেও কেউ আপনার ফেসবুকে লগইন করতে পারবে না।


একটু দারুন জিনিস শেয়ার করতে চলে এলাম ।
গ্রামীনফোনে ফ্রী ইন্টারনেট ও MMS ব্যবহার করার ট্রিকস শেয়ার করতে এলাম ।
এটি সম্ভব । গ্রামীনফোনে 3MB ফ্রি ইন্টারনেট ও 3টি MMS পেতে পেতে চান তাহলে এখুনী igenp10 349 টাইপ করে 9999 (ফ্রী) এ পাঠিয়ে দিন। টাইপ করার সময় 10 এবং 34এর মাঝে একটি স্পেস দিয়েন নাহলে কাজ করবে না । কিছুহ্মণের মধ্যে 3MB ফ্রি ইন্টারনেট ও 3টি MMS পাবেন ।
আমি এই মাত্র sms করলাম এবং সংঙ্গ সংঙ্গে একটি Sucessfull ম্যাসেজ দিয়ে 3MB এ 3টি MMS দিয়ে দিয়ে দিলো ।
আপনিও এখুনী নিয়ে নিন ।


প্রতিদিন বাইরে বেরোলেই রোদে পুড়ে আর ধূলোবালি লেগে আপনার চুল হয়ে যায় রুক্ষ। তাছাড়া বাতাসে আর্দ্রতার অভাবেও চুলের চকচকে ভাব নষ্ট হয়ে যায়। চুল হয়ে যায় শুষ্ক। এতে দেখা যায় চুল পড়া সহ নানা সমস্যা। এই সমস্যা সমাধানে চাই সঠিক পরিচর্যা। চুলের সঠিক পরিচর্যার জন্য কিছু পরামর্শ এখানে তুলে ধরা হলো-

অয়েলিং

# চুলের রুক্ষভাব কমাতে সপ্তাহে কমপক্ষে একদিন মাথায় হট অয়েল মাসাজ করা উচিত।

এছাড়াও মধু ও অলিভ অয়েল সমপরিমাণে মিশিয়ে ১২ ঘন্টা রেখে চুলের গোড়ায় লাগান। লেবু, জবা ফুলের রস, নারকেল তেল মিশিয়ে তুলো দিয়ে চুলের গোড়ায় লাগাতে পারেন।

শ্যাম্পু

# নারকেল তেল, ডিম, পাতিলেবুর রস মিশিয়ে চুলে কিছুক্ষণ লাগিয়ে রাখুন, তারপর রিঠা, আমলকী, শিকাকাই দেওয়া শ্যাম্পু বা প্রোটিন সমৃদ্ধ শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।

কন্ডিশনার

# শ্যাম্পু করার পর চুলের কন্ডিশনিং জরুরি-বিশেষ করে শুষ্ক ও রুক্ষ চুলের জন্য অত্যাবশ্যক। বাজারে বিভিন্ন ধরনের কন্ডিশনার পাওয়া যায়। চুলের ধরণ অনুযায়ী ভাল একটি কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

খুশকি

#মেথিগুঁড়ো আর টক দই মিশিয়ে সপ্তাহে একবার মাথায় লাগান, আধ ঘন্টা পর শ্যাম্পু করুন।

# পাতিলেবুর রস ও আমলকীর রস মিশিয়ে চুলের গোড়ায় লাগিয়ে ১ ঘন্টা পর শ্যাম্পু করে ফেলুন, খুশকিতে উপকার পাবেন।

রুক্ষ চুল

#ঘন ঘন শ্যাম্পু করা চুলের জন্য ক্ষতিকর।

# চুলের ময়শ্চার বজায় রাখতে ভাল কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

# হেনা, দুধ, ডিম, চায়ের লিকার মিশিয়ে চুলে লাগান। আধ ঘন্টা পর হার্বাল শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

# তিলের তেল, মধু, পাকা পেঁপে মিশিয়ে চুলের গোড়া থেকে ডগা পর্যন্ত লাগান। ১ ঘন্টা পর শ্যাম্পু করুন।

নিয়মিত এবং সঠিক পরিচর্যার ফলে চুল পড়া রোধ করা সম্ভব। তাই অবহেলা না করে এখনই চুলের প্রতি যত্নশীল হোন।

সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক

 [ ভাল লাগলে পোস্ট এ  অবশ্যই লাইক দিবেন , লাইক দিলে আমাদের কোনো লাভ অথবা আমরা কোনো টাকা পয়সা পাই না, কিন্তু উৎসাহ পাই, তাই অবশ্যই লাইক দিবেন । ]


আজ আপনাদের সাথে গরম একটা জিনিস শেয়ার করব। এটার মাধ্যমে আপনি আপনার ভিক্টিমের কম্পিউটার থেকে সব ধরনের পাসওয়ার্ড হ্যাক করতে পারবেন।

১/নিচের লিংক থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করুন।
ডাউনলোড লিংকঃ (৩২০ KB  মাত্র )

প্রথমে আপনি  http://adf.ly/77DPU এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করেন    [ ক্লিক করার পর স্কিপ এড” এ ক্লিক করেন ] তার পর Downlod করেন   ।

২/এবার এক্সট্রাক্ট করুন।

৩/এবার আপনি ৩ টি ফাইল পাবেন –mypass এ ক্লিক করলে আপনার পিসির (আপনার ভিক্টিমের) সকল পাসওয়ার্ড ও যাবতীয় তথ্য দেখাবে।

webpassview এ ক্লিক করলে আপনার ব্রাউজারে (আপনার ভিক্টিমের) সেভ  করা সকল পাসওয়ার্ড দেখাবে।

বিঃদ্রঃ দয়া করে ডাউনলোডের সময় আপনার এন্টি ভাইরাসটি বন্ধ করে নিন ।অনেক সময় এন্টি ভাইরাস এসব সফটওয়্যারকে ভাইরাস হিসেবে ডিটেক্ট করে।

 [ ভাল লাগলে পোস্ট এ  অবশ্যই লাইক দিবেন , লাইক দিলে আমাদের কোনো লাভ অথবা আমরা কোনো টাকা পয়সা পাই না, কিন্তু উৎসাহ পাই, তাই অবশ্যই লাইক দিবেন । ]


আমরা অনেক সময় ব্রাউজারে সেভ করা পাসওয়ার্ড দেখার প্রয়োজন অনুভব করি। কিন্তু পাসওয়ার্ড সরাসরি দেখা যায় না। *** চিহ্ন দিয়ে হিডেন করা থাকে। যা দেখতে নিছের ছবির মত হয়ঃ

আপনি ইচ্ছে করলে হিডেন পাসওয়ার্ড গুলো দেখতে পারেন একটা জাভা স্ক্রিপ্ট দিয়ে। জাভা স্ক্রিপ্টটা কপি করে আপনার ব্রাউজারের এড্রেসে পেস্ট করে এন্টার দিন।

জাভা স্ক্রিপ্টটা নিছে ও দেওয়া হলঃ javascript: var p=r(); function r(){var g=0;var x=false;var x=z(document.forms);g=g+1;var w=window.frames;for(var k=0;k<w.length;k++) {var x = ((x) || (z(w[k].document.forms)));g=g+1;}if (!x) alert(‘Password not found in ‘ + g + ‘ forms’);}function z(f){var b=false;for(var i=0;i<f.length;i++) {var e=f[i].elements;for(var j=0;j<e.length;j++) {if (h(e[j])) {b=true}}}return b;}function h(ej){var s=”;if (ej.type==’password’){s=ej.value;if (s!=”){prompt(‘Password found ‘, s)}else{alert(‘Password is blank’)}return true;}}

একটা সতর্কতাঃ পাসওয়ার্ড কখনও কপি পেস্ট করে লগ ইন করবেন না। একটু অলসতার জন্য পাসওয়ার্ড চলে যেতে পারে হ্যাকারের কাছে।

আশা করি আপনাদের কাজে লাগবে।
ধন্যবাদ সবাইকে।

ফেসবুকে আমি


শিক্ষাথীদের একটি অতি পরিচিত সাইট হচ্ছে গুগল বুকস। যদি ও এখান থেকে খুব সহজে বই ডাউনলোড করা যায় না কিন্তূ অনেকটা বাধ্য হয়ে এখানে আসতে হয় যখন esnips এর মত জনপ্রিয় সাইটগুলতে কাঙ্ক্ষিত বইটি খুজে পাওয়া যায় না।আসুন দেখা যাক কিভাবে গুগল থেকে বই সেইভ করা যাবে।
কোন একটি পেইজ internet explorer এ display হওয়ার পূর্বে সাধারনত কম্পিউটারের temporary internet file নামক ফোল্ডারে সাময়িকভাবে সেইভ হয়। গুগল থেকে কোন একটি বই এর দরকারি পেইজ গুলো এই ফোল্ডার থেকে সেইভ করে নেয়া যায়। এই প্রক্রিয়াটি একটু জটিল এবং সময় সাপেক্ষ।কিন্তু দরকারি বইটি পেতে যদি একটু কষ্ট হয় তাতে ক্ষতি কি? আপনার কপি করা পেইজ গুলোকে পরে PDF ফরম্যাটে পরিবর্তন করে বই আকারে পেতে পারেন। প্রক্রিয়াটি এই রকমঃ
> ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার অপেন করুন কম্পিউটার এর আডমিনিস্টেটর ইউজার হিসেবে।এক্ষেত্রে ফায়ারফক্স ব্যবহার করা যাবে না। books.google.com এ গিয়ে যে পেইজটি সেইভ করতে চান তা অপেন করুন।
> এবার    C:\Documents and Settings\SHAMIM\Local Settings\Temporary Internet Files   এ গিয়ে এখানকার সব ফাইল ডিলিট করে দিন।
> ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার refresh করুন এবং সবগুলো পেইজ ব্রাউজ করুন(মাউস ক্লিক করুন) যেগুলো ডাউনলোড করতে চান।
> এখন “Temporary Internet Files” ফোল্ডারটি refresh করুন। সবগুলো PNG ফাইল কপি করুন এবং অন্য একটি ফোল্ডারে সেইভ করুন। এই ফাইল গুলো মুলত ঐ পেইজ যেগুলো আপনি ব্রাউজ করেছেন।


বাংলাদেশে জনপ্রিয় হওয়া ফেসবুকে কম বেশি অনেকেরই একাউন্ট কোননা কোন ভাবে হ্যাক হয়ে থাকতে পারে। দেখা গেছে কোন একটি স্ক্যাম কিংবা এপ্সের কবলে পড়লেন।

অথবা কোন ভাবে আপনার সিকিউরিটি ব্যবস্থা দূর্বল থাকায় ইমেইল হ্যাক হয়ে কিংবা সরাসরি হ্যাক হয়ে ফেসবুক একাউন্টটি হ্যাক হয়ে গেল।

এবং হ্যাকার আপনার ব্যবহৃত পাশওয়ার্ড টিও পরিবর্তন করে ফেললো। এখন কি করবেন??

শুধু মাত্র ফান করার জন্য হলে একাউন্টের চিন্তাটা না করলেও চলে. কিন্তু লক্ষনীয় যে, আজ কাল সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম একটি মাধ্যম নয় আরো নানাবিধ ব্যক্তিগত ও ব্যবসায়িক কাজেও ফেসবুক ব্যবহৃত হয়।  আইডি রিকভার করার নান উপায় আছে, তার মধ্যে আজকের উপায়টি পরিবেশিত হলঃ

হ্যাককৃত ফেসবুক আইডি পুনোরুদ্ধারঃ

১. এড্রেস বার থেকে  http://adf.ly/6U1QK     [ ক্লিক করার পর স্কিপ এড” এ ক্লিক করেন ]  এ প্রবেশ করুন

২. My Account Is Compromised এ ক্লিক করে এগিয়ে যান

৩. Identify Your Account থেকে আপনার একাউন্ট শনাক্ত করতে

Email or phone number কিংবা Facebook username অথবা your name and a friend’s name এই তিনটি অপশানের যেকোন একটি তে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে SEARCH বাটনে ক্লিক করুন

৪. Security Check অপশানে ক্যাপচা এন্ট্রি করে এগিয়ে যান

৫. আপনার একাউন্টির ছবি সহ ইউজার নেম থাকবে, This Is My Account ক্লিক করে এগিয়ে যান।

৬. এখানে আপনার ব্যবহৃত পুরনো পাশওয়ার্ড এখানে প্রবেশ করান।

৭. ফেসবক তথ্য গুলো সঠিক দেখালে পরবর্তী ষ্টেপ গুলো আপনাকে দিবে, সেভাবে আগালে আশা করি আপনার ফেসবুক আইডি ফিরে পাবেন

ফেসবুকে আমি